মেরিন ড্রাইভে সেনা কর্মকর্তা নিহতের ঘটনা তদন্ত করবে ৩ জনের কমিটি

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ

পুলিশের গুলিতে অবসরে যাওয়া সেনা কর্মকর্তা নিহত হওয়ার ঘটনায় তদন্ত কমিটি গঠন করেছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। শুক্রবার (৩১ জুলাই) রাত সাড়ে ১০টার দিকে কক্সবাজারের টেকনা‌ফ উপ‌জেলার বাহারছড়ায় মে‌রিন ড্রাইভ সড়কে পু‌লিশের গু‌লিতে সেনাবা‌হিনীর অবসরপ্রাপ্ত মেজর সিনহা মো. রাশেদ খান নিহত হন। তিনি বাংলাদেশ মিলিটারি একাডেমি (বিএমএ) লং কোর্স ৫১তম ব্যাচের একজন কর্মকর্তা ছিলেন।

এ ঘটনার তদন্তে শনিবার (১ আগস্ট) তিন সদস্যের কমিটি গঠন করেছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। জননিরাপত্তা বিভাগের এক নির্দেশনায় বলা হয়েছে, তিন সদস্যের কমিটির আহ্বায়ক কক্সবাজারের অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট মোহা. শাজাহান আলী। অন্য দুই সদস্য হলেন কক্সবাজার জেলার অতিরিক্ত পুলিশ সুপার এবং ১০ পদাতিক ডিভিশনের জিওসি ও কক্সবাজারের এরিয়া কমান্ডারের একজন প্রতিনিধি। আগামী সাত কর্মদিবসের ভেতরে কমিটিকে তদন্ত প্রতিবেদন দিতে বলা হয়েছে।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের ওই চিঠিতে বলা হয়েছে, তদন্ত কমিটি ঘটনার বিষয়ে সরেজমিনে তদন্ত করে ঘটনার কারণ ও উৎস অনুসন্ধান করবেন। একই সঙ্গে ভবিষ্যতে এ ধরনের ঘটনা প্রতিরোধে করণীয় সম্পর্কে মতামত দেবেন।

শুক্রবার (৩১ জুলাই) রাত সাড়ে ১০টার দিকে কক্সবাজারের টেকনা‌ফ উপ‌জেলার বাহারছড়ায় মে‌রিন ড্রাইভ সড়কে পু‌লিশের গু‌লিতে নিহত হওয়া সেনাবা‌হিনীর অবসরপ্রাপ্ত মেজর সিনহা মো. রাশেদ খান যশোরের ১৩ বীর হেমায়েত সড়কের সেনানিবাস এলাকার মৃত এরশাদ খানের ছেলে।