পথচারীকে মারধরের মামলায় টিকটক ভিডিও নির্মাতা অপু আটক

অনলাইন ডেস্কঃ

সাধারণ নাগরিকদের হেনস্তা এবং মারধর করার অপরাধে ‘লাইকি স্টার’ অপুকে আটক করেছে পুলিশ। সোমবার রাত সাড়ে ১০টার দিকে রাজধানীর উত্তরা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, শনিবার তাদের এমন হিংস্র কর্মকাণ্ডের শিকার হয়েছেন রবিন নামে এক পথচারী এবং তার বন্ধুরা। রবিন পেশায় একজন ইঞ্জিনিয়ার এবং উত্তরার বাসিন্দা।

এদিন সন্ধ্যা ৭ টার দিকে রবিন এবং তার বন্ধুরা আড্ডা দিচ্ছিলো উত্তরার ৮ নাম্বার সেক্টরের পাবলিক কলেজের সামনে। তিনি এবং তার বন্ধুরা আড্ডা দেওয়ার এক পর্যায়ে দেখতে পান, এক সাথে ৬০ থেকে ৭০ জন বিভিন্ন বয়সের কিশোর ওখানকার রাস্তায় জড়ো হয়ে আছে।

তারা দেখতে পান, এই কিশোরদের ভিতরে এক ধরণের বিশৃঙ্খল আচরণ করছে। এই কিশোর গুলোর নেতৃত্ব দিচ্ছিল তথাকথিত ‘অপু ভাই’ নামক এক কিশোর। তারা তাদের দলবল নিয়ে লাইকি এবং টিকটক ভিডিও বানাচ্ছিল এবং সেখানেই বসে চিল্লাচিল্লি ও অশ্লীল ভাষায় গালিগালাজ করতে থাকে।

এমন সময় রবিন তার নিজের প্রাইভেট কার নিয়ে গলি থেকে বের হতে গেলে দেখেন, সেই কিশোর দল ভিডিও বানানোর নামে রাস্তা অবরোধ করে রেখেছে। রবিন এসময় তাদেরকে সরে যেতে বলে এবং গাড়ির হর্ন দেয়। এই কথায় ক্ষিপ্ত হয়ে অপু এবং তার দলবল রবিনের উপরে বিভিন্ন ধরণের সরঞ্জাম নিয়ে হামলা চালায়। এরমধ্যে লাঠি, বাইকের হেলমেট ও রড জাতীয় বস্তু ছিল।

এই ঘটনা দেখতে পেয়ে রবিনের বন্ধুরা তাদের বাঁচাতে আসলে অপুর বাহিনী তাদেরকেও মারধর করে। এতে রবিনের মাথা ফেটে যায় এবং তার বন্ধুরা গুরুত্বর আহত হন। এসময় সেই অপু বলে– তোদেরকে মেরে ফেললেও পুলিশ প্রশাসন আমার কিচ্ছু করতে পারবে না।

রবিনের অবস্থা গুরুত্বর দেখে তার বন্ধুরা নিকটস্থ হাশপাতালে নিয়ে যায়। এই ঘটনায় উত্তরার পূর্ব থানায় একটি মামলা করা হয়। থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তার সাথে যোগাযোগ করলে তিনি বলেন, আমরা মামলাটি গ্রহণ করেছি এবং অপুকে গ্রেফতার করা হয়েছে।