রামুর জোয়ারিয়ানালা আয়েশা ছিদ্দিকা (রাঃ) মহিলা মাদরাসায় সূধী সমাবেশ অনুষ্ঠিত

সোয়েব সাঈদ, রামু
রামু উপজেলার জোয়ারিয়ানালা ইউনিয়নের একমাত্র মহিলা মাদরাসা আয়েশা ছিদ্দিকা (রাঃ) মহিলা মাদরাসা। যেখানে রয়েছে আরবি বিষয়ে কওমি মাদ্রাসা ও মাদানী নেসাব এবং জেনারেল বিষয়ে বাংলাদেশ মাদরাসা শিক্ষাবোর্ড প্রণীত সিলেবাসের সমন্বয়।

উল্লেখ্য দীর্ঘ লকডাউনের পর সম্পূর্ণ স্বাস্থ্যবিধি মেনে গত ৩১ আগস্ট মাদরাসা কার্যক্রম শুরু করা হয়। লকডাউনের কারণে দীর্ঘদিন মাদরাসা কার্যক্রম বন্ধ থাকায় পিছিয়ে পড়া শিক্ষার্থীদের পড়ালেখার মান উন্নয়ন, স্থায়ী ক্যাম্পাস নির্ধারণ ও ২০২১ সালে পঞ্চম শ্রেণী চালু করণ সহ বিবিধ বিষয়ে বৃহষ্পতিবার (১০ সেপ্টেম্বর) সকাল ৭ টায় হাজ্বী চান্দমিয়া সওদাগর শপিং সেন্টারের নিচ তলায় মাদরাসার অস্থায়ী ক্যাম্পাসে এসূধী সমাবেশ ও অভিভাবক সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।

মাদরাসা পরিচালনা কমিটির সদস্য ও রামু জামেয়াতুল উলুম মাদরাসার শিক্ষক মাওলানা হাফেজ হেফাজতুর রহমানের সভাপতিত্বে, মাদরাসার সহকারি শিক্ষক তৌহিদুল ইসলাম বারেকের সঞ্চালনায় শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন মাদরাসা পরিচালনা কমিটির সদস্য আলহাজ্ব মাওলানা আহমদুর রহমান। প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন হাজ্বী চান্দমিয়া সওদাগর শপিং সেন্টারের স্বত্তাধিকারী মাষ্টার ফরিদুল আলম। বিশেষ অতিথির বক্তব্য রাখেন বিশিস্ট ব্যবসায়ী ছব্বির আহমদ, পশ্চিম জোয়ারিয়ানালা নূরানী আল কোরআন কেজি একাডেমির প্রধান শিক্ষক ও মাদরাসা পরিচালনা কমিটির সদস্য মাওলানা মনছুরুল আলম, শিক্ষক মাওলানা কলিম উল্লাহ, অভিভাবক মাওলানা আজগর আলী, মোক্তার আহমদ, ব্যবসায়ী ছলিম উল্লাহ, রাশেল প্রমুখ।

সভায় ২০২১ সালের জানুয়ারিতে চতুর্থ ও পঞ্চম শ্রেণীর ভর্তি কার্যক্রম শুরুর সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। চান্দমিয়া সওদাগর শপিং সেন্টারের ৩য় তলায় অস্থায়ী ক্যাম্পাসের ব্যবস্থা করা হবে। কওমি শিক্ষা বোর্ডের পরিক্ষার পাশাপাশি পঞ্চম শ্রেণীর শিক্ষার্থীরা বাংলাদেশ মাদরাসা শিক্ষা বোর্ডের অধীনে ইবতেদায়ী শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষায় অংশ নেবে।

পরিচালনা কমিটির পক্ষে মাওলানা হাফেজ হেফাজতুর রহমান বলেন, শিক্ষার্থীদের কুরআন সুন্নাহর আলোকে ধর্মীয় শিক্ষার পাশাপাশি ইসলামী শরিয়াহ মোতাবেক আধুনিক শিক্ষায় (বাংলা, ইংরেজি, কারিগরি) শিক্ষিত করা হবে। এবং মহিলাদের পর্দা, শরয়ী বিধান ও ধর্মীয় অনুশাসন সম্পর্কে হযরত আয়েশা ছিদ্দিকা (রাঃ) সহ মহিলা সাহাবীদের জীবন আদর্শের আলোকে শিক্ষার্থীদের গড়ে তোলা হবে।

তিনি মাদরাসার স্থায়ী ক্যাম্পাসের ব্যবস্থা, মাদরাসা সরঞ্জামসহ বিভিন্ন বিষয়ে সহযোগীতা ও পরামর্শের জন্য স্থানীয় বৃত্তবানদের আহ্বান জানান এবং সকলের মেয়েকে আধুনিক শিক্ষার পাশাপাশি ধর্মীয় শিক্ষায় শিক্ষিত করতে উক্ত মাদরাসায় ভর্তি করার অনুরোধ জানান। মাওলানা হাফেজ হেফাজতুর রহমানের বিশেষ মোনাজাতের সভার সমাপ্তি ঘোষণা করা হয়।