কক্সবাজার বিমান বন্দরে সংবর্ধিত বাফুফের সদস্য বিজন বড়ুয়া

খালেদ শহীদ, রামু
কক্সবাজার বিমান বন্দরে ফুলেল শুভেচ্ছায় সংবর্ধিত হয়েছেন বাফুফের নবনির্বাচিত সদস্য বিজন বড়ুয়া। সোমবার (১২ অক্টোবর) বিকাল ৪টা ১৫ মিনিটে কক্সবাজার বিমান বন্দরে বিজন বড়ুয়াকে পুষ্পস্তবক দিয়ে সংবর্ধিত করেন, রামু সোনালী অতীত ফুটবল ক্লাব, রামু ক্রীড়া সংস্থা, রামু ব্রাদার্স ইউনিয়ন, কক্সবাজার ফুটবল একাডেমী, কক্সবাজার রেফারী এসোসিয়েশন নেতৃবৃন্দ সহ রামু উপজেলার সাবেক ও বর্তমান ফুটবল খেলোয়াড়রা।
কক্সবাজারের গৌরব বাফুফের নবনির্বাচিত সদস্য বিজন বড়ুয়ার হাতে পুষ্পস্তবক দিয়ে সংবর্ধনা জানান, রামু ক্রীড়াা সংস্থার সাধারণ সম্পাদক সুুবির বড়ুুয়া বুুলু, রামু সোনালী অতীত ফুটবল ক্লাবের সভাপতি ছিদ্দিক, যুগ্ম সম্পাদক খালেদ শহীদ, রামু ব্রাদার্স ইউনিয়নের সভাপতি মো. নবু আলম, সাধারণ সম্পাদক পলক বড়ুয়া আপ্পু, কক্সবাজার ফুুটবল একাডেমীর পরিচালক ইসমাইল জাহেদ, কক্সবাজার রেফাারি এসোসিয়েশনের সাধারন সম্পাদক আবুুল কাসেম কুুতুবিসহ সাবেক ও বর্তমান খেলোয়াড়রা।
জন্মভূমি রামুর খেলোয়াড়দের ফুলেল সংবর্ধনায় উচ্ছ্বসিত বাফুফে সদস্য বিজন বড়ুয়া বলেন, আমি আনন্দিত, উচ্ছ্বসিত। আমার
প্রিয় জন্ম ভুমি রামু ও কক্সবাজারের খেলোয়াড়রা আমাকে সংবর্ধিত করেছে।  তিনি বলেন, কক্সবাজারে ফুটবল খেলার উন্নয়নে কাজ করা এবং কক্সবাজারে একটি আন্তর্জাতিক স্টেডিয়াম নির্মাণে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী প্রতিশ্রুতি বাস্ততবায়ন হবে আমার মুল লক্ষ।
রামু সোনালী অতীত ফুটবল ক্লাবের সভাপতি ছিদ্দিক আহমদ বলেন, কক্সবাজারের কৃতি সন্তান বিজন বড়ুয়া আবারও বাংলাদেশ ফুটবল ফেডারেশন (বাফুফে) সদস্য নির্বাচিত হয়েছেন। পর পর তিনবার বাফুফের সদস্য পদ লাভ করেছেন সাবেক এই কৃতি ফুটবলার। কক্সবাজারের কৃতিপুরুষ বিজন বড়ুয়া দেশের ফুটবল উন্নয়নে কাজ করবে, এ কৃতিত্ব শুধু বিজন বড়ুয়ার নয়। এ কৃতিত্ব কক্সবাজারবাসীরও। বিজন বড়ুয়ার হাত ধরেই কক্সবাজার জেলায় ফুটবল খেলার উন্নয়ন হবে। উপজেলা পর্যায়েও ফুটবল খেলা আয়োজন, উন্নয়ন ও পরিবর্তন হবে বলে আমি বিশ্বাস করি।

বাংলাদেশ জাতীয় ফুটবল দলের নিয়মিত খেলোয়াড় হয়ে ফুটবল খেলেছেন বিজন বড়ুয়া। বিভিন্ন ক্লাবের হয়েও  তিনি কাতার, তাজিকিস্তান, দক্ষিন কুরিয়া, জাপান, ইংল্যান্ড, অস্ট্রেলিয়া, ভারত, মালেশিয়া, থাইল্যান্ড ও নেপালে ফুটবল খেলেছেন। এ সব দেশে তিনি বাংলাদেশের প্রতিনিধি হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেছেন। বিজন বড়ুয়া ২০১২-২০১৬ সাল পর্যন্ত বাফুফে পাইওনিয়ার ফুটবল লীগ কমিটির চেয়ারম্যান এবং ২০১৭-২০১৯ বাফুফে জাতীয় স্কুল ফুটবল পরিচালনার দায়িত্ব পালন করেন।

কক্সবাজার জেলা ফুটবল দলের খেলোয়াড় হিসেবে কৃতিত্বপূর্ণ খেলোয়াড়ী জীবনের শুরু করেন ১৯৮৪ সালে। ১৯৮৫ সাল হতে চট্টগ্রাম লীগে আবাহনী ক্রীড়া চক্র, পিডিবি রিক্রিয়েশন ক্লাব, হাফিজ জুট মিলস, ইস্পাহানী জুট মিলস এবং মুক্তি ক্লাবের পক্ষে নিয়মিত ফুটবল খেলেছেন তিনি। ঢাকার মাঠের জনপ্রিয় হয়ে উঠেন কৃতিফুটবলার বিজন বড়ুয়া। নিয়মিত ফুটবলার হিসেবে ১৯৯০ সাল হতে ঢাকায় ফুটবল খেলেছেন বিভিন্ন ক্লাবে। কৃতি সাবেক এ ফুটবলার ঢাকায় মোহামেডান স্পোর্টিং ক্লাব লিঃ, মুক্তিযোদ্ধা সংসদ ক্রীড়া চক্র, রহমতগঞ্জ মুসলিম ফন্ড সোসাইটি, অগ্রণী ব্যাংক এস সি ফুটবল ক্লাব লিঃ, আরামবাগ ক্রীড়া সংঘ, ফকিরাপুল ইয়াংমেন্স ক্লাব এবং ঢাকা ওয়ারী ক্লাবের পক্ষ হয়ে সাফল্যের সাথে ফুটবল খেলেছেন। বর্তমানে তিনি কক্সবাজার জেলা ক্রীড়া সংস্থার কার্যনির্বাহী কমিটির একজন নিবাচিত ভাইস প্রেসিডেন্ট হিসেবে গুরুত্বপূর্ন দায়িত্ব পালন করছেন।