ঝিলংজায় চাঁদার দাবিতে স্বামী-স্ত্রী’র উপর হামলা

 

নিজস্ব প্রতিবেদক
কক্সবাজার সদর উপজেলার ঝিলংজা ইউনিয়নের লিংকরোড বিসিক শিল্প এলাকায় চাঁদার দাবিতে অসহায় হতদরিদ্র স্বামী ও স্ত্রীর উপর হামলা করার অভিযোগে উঠেছে। স্থানীয় চিহ্নিত চাঁদাবাজ ও মাদকাসক্ত ইসলামাঈলের নেতৃত্বে এই হামলা চালানো হয়। গত ২ অক্টোবর বিকাল ৪ টায় এ ঘটনা ঘটে।

এ ব্যাপারে সদর মডেল থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।
অভিযোগ সুত্রে জানা যায়, লিংকরোড বিসিক শিল্প এলাকার জাকির হোসেন প্রকাশ কালা পুতু ও তার পুত্র ইসমাঈল ওরফে মিড়াইয়ার রাম রাজত্ব চলছে। তাদের নির্যাতনে অতিষ্ট হয়ে উঠেছে এলাকার সাধারণ মানুষ। ইসমাঈলের নেতৃত্বে একটি সংঘবদ্ধ চক্র এলাকায় প্রতিনিয়ত ছিনতাই, চাঁদাবাজি, জমি দখলসহ নানা অপকর্ম করে আসছে। তাদের এসব অপকর্মের বিরুদ্ধে কেউ প্রতিবাদ করলে চালানো হয় নির্মম নির্যাতন। সম্প্রতি এই চক্রের হাতে স্থানীয় আবু বক্কর, নয়ন ও হারুন বাবুর্চির মেয়ে মারধরের শিকার হয়। তাদেরকে বেধম মারধর করে ইসমাঈল বাহিনী মোবাইল, নগদ টাকাসহ সর্বস্ব ছিনিয়ে নেয়। সর্বশেষ জাকির হোসেন প্রকাশ কালা পুতুর পুত্র ইসমাঈল ওরফে মিড়াইয়া, তার পিতা জাকির হোসেন প্রকাশ কালা পুতু ও তার স্ত্রী নুনু বেগম একই এলাকার জোবাইদা বেগম এবং তার স্বামী কবির আহমদের কাছ থেকে ৫০ হাজার টাকা চাঁদা দাবি করে। চাঁদা না দিলে তাদের মাথা গোজার ঠাঁই জমি জবর দখলের হুমকী দেয়া হয়। জমি হারানোর ভয়ে জোবাইদা বেগম ও কবির আহমদ নিজেদের পালিত ছাগল বিক্রি করে ১২ হাজার টাকা ইসমাঈল বাহিনীকে প্রদান করে। কিন্তু চাঁদার পুরো টাকা না দেয়ায় ক্ষিপ্ত হয়ে গত ০২ অক্টোবর ঘরে অনধিকারভাবে ঢুকে জোবাইদা বেগমকে এলোপাতাড়ি মারধর করে। এসময় তার স্বামী কবির আহমদ বাধা দিতে গেলে তাকেও ছুরিকাঘাত করা হয়। হামলা শেষে পুরো চাঁদা না দিলে জমি জবর দখল, হত্যাসহ ঘর জ¦ালিয়ে দেয়ার হুমকী দিয়ে চলে যায় ইসমাঈলসহ তার লোকজন। পরে স্থানীয়রা জোবাইদা বেগম ও কবির আহমদকে উদ্ধার করে কক্সবাজার সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। অসহায় জোবাইদা বেগম ও কবির আহমদ ঈসমাঈল বাহিনীর হাত থেকে পরিত্রাণ পেতে সদর মডেল থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।