টিএন্ডটি অফিস এখন ময়লা আবজর্নার ভাগাড় : দেখার কেউ নেই 

এম আবু হেনা সাগর,ঈদগাঁও 

কক্সবাজার সদরের ঈদগাঁও বাজারে অবস্থিত টিএন্ডটি পুকুর যেন ময়লা আবর্জনার ভাগাড়ে পরিনত হয়ে পড়েছে। দেখার যেন কেউ নেই। এতে ঐ সড়ক দিয়ে যাতায়াতকারী ও মুসল্লীরা দুর্গন্ধে অতিষ্ট হয়ে পড়েছে। ফলে একদিকে হচ্ছে পরিবেশ দূষণ, অপরদিকে স্বাস্থ্য ঝুঁকিতে সাধারণ মানুষ।

দেখা যায়, টিএন্ডটির গেইট, রাস্তা, বাউন্ডারী ওয়াল ও অফিস যেন ভুতুড়ে পরিবেশ। অস্বাস্থ্যকর, দুর্গন্ধসহ নোংরা। জনবল সংখ্যাও কম। গোটা ঈদগাঁও বাজারের ময়লা আবর্জনা রাতের আঁধারে টিএন্ডটি অফিসের পুকুরে স্তুপ করে রাখে। এক পর্যায়ে ময়লা আবর্জনা দুর্গন্ধে পরিণত হলে সড়ক দিয়ে দৈনিক অসংখ্য যাতায়াতকারী জনগণ ও মুসল্লীদের চরম দুর্গন্ধ পোহাতে হচ্ছে। স্থানীয় জনপ্রতিনিধিসহ সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের নেই সুদৃষ্টি।

স্থানীয়রা জানান, ঈদগাঁও বাজারের যত্রতত্র- ময়লা আবর্জনা টিএন্ডটি অফিস সংলগ্ন স্থানে পুকুর পাড়ে ফেলে। এতে করে বাজারে আসা লোকজনদেরকে দুর্গন্ধ পোহাতে হচ্ছে।

ব্যবসায়ী রেজাউল করিম জানান, টিএন্ডটি অফিসের পাশঘেঁষে ময়লা আবজর্না যেন চেয়ে গেছে। সংস্কার নেই দীর্ঘদিন ধরে। যার কারনে দূর্গন্ধে বিষিয়ে উঠছে পরিবেশ।

ঈদগাঁও ছাত্রলীগের সাবেক সম্পাদক ইরফানুল করিম জানান, টিএন্ডটি জায়গাটি পরিত্যাক্ত ও জলাবদ্ব। এই জায়গায় যদি সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ একটু নজর দেয় তাহলে সরকার  ও জনগন লাভবান হবে।

উল্লেখ্য, ঈদগাঁওতে একমাত্র গুরুত্ববহনকারী যোগাযোগ মাধ্যম ছিল ল্যান্ডফোনের টিএন্ডটি অফিস। এ অফিসে রয়েছে ঐতিহ্যময় অনেক বছরের পুরনো অতীত ইতিহাস। এই জনগোষ্ঠির স্বার্থে দেশ-বিদেশে যোগাযোগের কথা চিন্তা করে তৎকালীন সময়  ডাক ও টেলিযোগ মন্ত্রণালয়ের অধীনে ঈদগাঁও  টিএন্ডটি অফিসটি স্থাপিত হয়েছিল।