কক্সবাজারে গ্রেফতার তিন পুলিশ সদস্য বরখাস্ত, নেয়া হচ্ছে বিভাগীয় ব্যবস্থা

শাহেদ মিজান:

কক্সবাজারে শহরে পিস্তল ঠেকিয়ে টাকা ছিনতাইয়ে ঘটনায় গ্রেফতার হওয়া তিন পুলিশ সদস্যকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। একই সাথে তাদের বিরুদ্ধে নেয়া হবে বিভাগীয় ব্যবস্থা।

কক্সবাজারের পুলিশ সুপার মোঃ হাসানুজ্জামান এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

পুলিশ সুপার জানান, এক মহিলার কাছ থেকে টাকা ছিনতাইয়ের ঘটনায় এক উপ-পরিদর্শকসহ তিন পুলিশ সদস্যকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তারা তিন জনই কক্সবাজার সদর মডেল থানায় কর্মরত ছিলেন।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন, উপ-পরিদর্শক নূরুল হুদা কনস্টেবল মুমিনুল মামুন ও মামুন মোল্লা।
তিনজনই কক্সবাজার মডেল থানায় কর্মরত ছিলো।

কক্সবাজার সদর মডেল থানা সূত্রে জানা গেছে, তিন পুলিশ সদস্য সাদা পোশাকে মধ্যম কুতুবদিয়া পাড়ার রিয়াজ আহমদের বাড়িতে গিয়ে তার স্ত্রী রোজিনা আকতারকে পিস্তল ঠেকিয়ে টাকা ছিনতাই করে। চলে আসার পথে রোজিনা আকতার চিৎকার দিলে প্রতিবেশিরা এগিয়ে আসে। পালানোর সময় এক পুলিশ সদস্যকে আটক করে লোকজন। তবে অন্য দু’জন পালিয়ে যায়। পরে ৯৯৯ এ কল দিলে থানা পুলিশের একটি দল গিয়ে ওই পুলিশ সদস্যকে আটক করে থানায় নিয়ে যায়। পরে তার স্বীকারোক্তি মতে অন্য দুইজনকে গ্রেফতার করা হয়।

এই ঘটনায় রোজিনা আকতার বাদি হয়ে রাতেই একটি মামলা করেছেন। আসামীদের আদালতে পাঠানো হয়েছে।

পুলিশ সুপার মোঃ হাসানুজ্জামান বলেন, কেউই আইনের উর্ধ্বে নয়। অপরাধ করে কেউ পার পাবে না। গ্রেফতার পুলিশ সদস্যদের বিরুদ্ধে আইনী বিধি মতো সব ধরণের ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।