খুনিয়াপালং ইউনিয়নে আওয়ামীলীগের সভাপতি আবদুল হক কোং, সম্পাদক কামাল উদ্দিন

 

প্রেস বিজ্ঞপ্তি
বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ রামু উপজেলার খুনিয়াপালং ইউনিয়নের ত্রি-বর্ষিক সম্মেলন ও কাউন্সিল সম্পন্ন হয়েছে।

১ ডিসেম্বর বিকাল ৪ টায় ধোয়াপালং প্রাথমিক বিদ্যালয়ে মাঠে আবদুল হক কোম্পানির সভাপতিত্বে সাধারন সম্পাদক হাজী বদিউজ্জামান বদুর সঞ্চালনায় অনুষ্ঠিত সম্মেলনে
প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন কক্সবাজার জেলা আওয়ামীলীগের সদস্য এডভোকেট সুলতানুল আলম, প্রধান বক্তা রামু উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি সোহেল সরওয়ার কাজল, সাধারন সম্পাদক শামশুল আলম মন্ডল,সাবেক সাধারন সম্পাদক শামশুল আলম,
সাংগঠনিক সম্পাদক ইউনুস রানা চৌধুরী, নুরুল হক চৌধুরী, শেখ জুনায়েদ বিপ্লব,রামু উপজেলা ছাত্র লীগের সাবেক সভাপতি নুরুল কবির হেলাল, সাবেক রামু উপজেলা ছাত্র লীগের সভাপতি ও উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান সালাহ উদ্দিন, মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান আফসানা জিয়াসমিন পপি,রামু উপজেলা আওয়ামীলীগের সদস্য জহির আলাউদ্দিন, রামু উপজেলা আওয়ামীলীগের সদস্য ও ফতেখাঁরকুল ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারন সম্পাদক সাংবাদিক আবদুল মালেক সিকদার, সিকদার, রাজারকুল ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি তারেক সরওয়ার,

খুনিয়াপালং ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সহ সভাপতি এডভোকেট নিক্স, রাজ্জাক সিকদার,মোহেছেন আলী সিকদার, সাংগঠনিক সম্পাদক মাষ্টার এহাছানুল করিম, আহাম্মদ কবিরসহ উপস্থিত ছিলেন খুনিয়াপালং ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ এবং ৯ টি ওয়ার্ডের কাউন্সিলার, ডেলিগেটসহ সদস্য বৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।
বক্তারা বলেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনাার হাতকে শক্তিশালী করার লক্ষে তৃনমুল আওয়ামীলীগের প্রত্যক্ষ ভোট নেতা নির্বাচিত করতে হবে।
প্রথম অধিবেশন শেষে দ্বিতীয় অধিবেশন শুরু হয়, এতে সভাপতি পদে বর্তামান সভাপতি বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় আবদুল হক কোম্পানি নির্বাচিত হয়েছেন এবং সাধারন সম্পাদক পদে প্রার্থীহন,বর্তামান সাধারন সম্পাদক বদিউজ্জামান বদু মাছ প্রতীক নিয়ে প্রার্থী হন। ৬ ওয়ার্ড আওয়ামীলীগের সভাপতি কামাল উদ্দিন ফুটবল প্রতীক নিয়ে নিয়ে সাধারন সম্পাদক পদে প্রার্থীহন। গণতান্ত্রিক পদ্ধতিতে কাউন্সিলার গনের প্রত্যক্ষ ভোটে বিপুল ভোটের ব্যবধানে সাধারন সম্পাদক পদে নির্বাচিত হন কামাল উদ্দিন।