খুটাখালীতে মানবাধিকার বিষয়ক মত বিনিময় সভা অনুষ্টিত

 

সেলিম উদ্দীন,ঈদগাঁহ

চকরিয়া উপজেলার খুটাখালীতে মানবাধিকার বিষয়ক সচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষে এক মত বিনিময় সভা অনুষ্টিত হয়েছে।
৩১ শে ডিসেম্বর মঙ্গলবার দুপুরে কিশলয় স্কুল মিলনায়তনে ইউএনডিপি ও একলাব এর যৌথ সহযোগিতায় স্থানীয় সেচ্ছাসেবী মানবিক ও প্রকৃতির উন্নয়ন বিষয়ক সংস্থা বিএনএস এর অায়োজনে মত বিনিময় সভায় সভাপতিত্বে করেন খুটাখালী ইউনিয়ন আ’লীগ ও কিশলয় স্কুল ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি আলহাজ্ব জয়নাল আবেদীন।
মানবাধিকারকর্মী মোঃ ইব্রাহিমের কোরআন তেলাওয়াতের মধ্য দিয়ে শুরুতে বক্তব্য রাখেন কিশলয় প্রধান শিক্ষক মোঃ তাজুল ইসলাম, মৌলভী আকতার আহমদ, ইউপি সদস্য জসিম উদ্দীন, ছালেহা পারভীন, সাংবাদিক সেলিম উদ্দীন, ব্যবসায়ী শাহাব উদ্দীন ও মনিরুল ইসলাম প্রমুখ।
যুবনেতা ইমরান খানের পরিচালনায় সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে বিএনএস চকরিয়া উপজেলা এরিয়া ম্যানেজার এয়ার মোহাম্মদ দস্তগীর বলেন, সমাজে বিদ্যমান বাল্যবিবাহ, যৌতুক প্রথা,শিশু শ্রম,পাহাড় কাটা, প্যারাবন নিধন,অবৈধ ভাবে বিদেশ গমন,স্বাস্থ্য সেবায় গাফিলতি,শিক্ষায় ঝড়ে পড়া রোধ,অপহরন,ইভটিজিং,ইত্যাদির বিরুদে সচেতনতা বৃদ্ধির মাধ্যমে সামাজিক আন্দোলন গড়ে তোলতে হবে।
সামাজিক মূল্যবোধ ও সাংস্কৃতিক চেতনা বৃদ্ধির মাধ্যমে সমাজিক সম্প্রীতি ও শান্তিপূর্ন সহবস্থান সৃষ্টির লক্ষ্যে উপস্থিত সবাইকে নিজ নিজ জায়গা থেকে কাজ করার জন্য আহবান জানান তিনি।
এসময় ইউনিয়নের শিক্ষানুরাগী, সমাজপতি, মসজিদের ইমাম, ধর্মীয় নেতা, রাজনৈতিক ব্যক্তিবর্গসহ অর্ধ শতাধিক লোক উপস্থিত ছিলেন।
অপরদিকে গত ২৬ ডিসেম্বর চকরিয়া সরকারী হাই স্কুল হল রুমে বিএনএস ও একলাব এর যৌথ উদ্যোগে সার্বজনীন মানবাধিকার বিষয়ক এক মত বিনিময় সভা সম্পন্ন হয়েছে।
বিএনএস চকরিয়া উপজেলা এরিয়া ম্যানেজার এয়ার মোহাম্মদ দস্তগীরের সঞ্চালনায় মতবিনিময় সভায় সভাপতিত্ব করেন মাওলানা মাহমুদুল হক। ইউএনডিপির অর্থায়নে পরিচালিত এ কর্মসুচীর সমন্বয়কারী অাহমেদ সায়েদ সভায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন। এসময় উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নের শিক্ষানুরাগী, সমাজপতি, ইমাম ও রাজনৈতিক নেতৃবৃন্দ উপজেলার গনমানুষের অধিকার যাতে হরন না হয় সে ব্যাপারে সচেতনতা বৃদ্ধির গুরুত্বারোপ করে বক্তব্য রাখেন।

 

সভায় বিএনএস উপজেলা এরিয়া ম্যানেজার এয়ার মোহাম্মদ দস্তগীর বলেন, সমাজে, প্রশাসনে সচ্ছতা বৃদ্ধি হলেই জনগনের অধিকার আদায়ের পথ সহজ হবে। জেলার প্রতিটি ইউনিয়নে মানবাধিকার বিষয়ে সচেতনতা বৃদ্ধি করে ২০২০ সালের কর্ম পরিকল্পনায় অংশ গ্রহনের জন্য তিনি উপস্থিত সবাইকে আহবান জানান।