চকরিয়ার বনাঞ্চল থেকে মেছো বিড়াল উদ্ধার

চবরিয়া প্রতিনিধিঃ

চকরিয়ার হারবাং বনাঞ্চল থেকে আহতবস্থায় এক মেছো বিড়াল উদ্ধার করা হয়েছে।
পরে এ মেছো বিড়ালটি চকরিয়ার ডুলহাজারা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব সাফারি পার্কে হস্তান্তর করা হয়েছে।
বর্তমানে মেছো বিড়ালকে সাফারি পার্কের ভেটেরেনারি হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে।
মঙ্গলবার দুপুরে চকরিয়া উপজেলার হারবাং ইউনিয়নের উত্তর হারবাং ইছাছড়ি বনাঞ্চল থেকে মেছো বিড়ালটি উদ্ধার করে ওই এলাকার জসিম উদ্দিন ও তার ভাই মহিউদ্দিন নামের দুই যুবক।
জসিম উদ্দিন বলেন, সকালে বাড়ি থেকে বের হয়ে বাগানে যাচ্ছিলাম। বাঘের মতো দেখতে জন্তুকে পড়ে থাকতে দেখি। এজন্য ছোট ভাই মহিউদ্দিনকে সাথে নিয়ে জন্তুটিকে ধরার চেষ্টা করি। বাড়ি থেকে জাল নিয়ে এসে দুই ভাই মিলে একে বন্দি করি। এসময় দেখতে পাই তার পিছনের পা দুটি আঘাত প্রাপ্ত। পরে বনকর্মীদের খবর দিলে তারা এসে দেখে উদ্ধার করা জন্তুটি বাঘ না মেছো বিড়াল। বনকর্মীরা মেছো বিড়ালটিকে ডুলাহাজারা সাফারি পার্কে নিয়ে যায়।

 

গত বছরও ওই এলাকা থেকে আরো একটি মেছো বিড়াল উদ্ধার করা হয়েছিলো।
ডুলাহাজারা সাফারি পার্কের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মাজহারুল ইসলাম চৌধুরী বলেন, আহতবস্থায় একটি মেছো বিড়ালকে পার্কে আনা হয়েছে। মেছো বিড়ালটিকে পার্কের ভেটেরিনারি হাসপাতালে চিকিৎসা দেয়া হচ্ছে। সুস্থ হয়ে উঠলে পার্কে ছেড়ে দেয়া হবে।
তিনি আরো বলেন, এটি নিশাচর প্রজাতীর প্রাণী। এরা সাধারণত দিনে ঘুমায় ‍আর রাতে ঘুরে বেড়ায়। এরকম মেছো বিড়াল পার্কে আরো বেশ কয়েকটি রয়েছে।